অন্য দেশের কেউ এবার হজ পালনে সৌদি যেতে পারবে না

২৩ জুন ২০২০, ১৩:৩৯
অনুসন্ধান ডেস্ক

সৌদি সরকার মঙ্গলবার ঘোষণা করেছে যে, চলতি বছরে (১৪৪১ হিজরি মোতাবেক ২০২০) হজ অনুষ্ঠিত হবে।

‘তবে হজে অংশ নিতে পারবেন সৌদিতে অবস্থান করা বিভিন্ন দেশের খুবই অল্প সংখ্যক মানুষ,’ সৌদি আরবের হজ ও ওমরা মন্ত্রণালয় এক বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা বলেছে।

‘বর্তমান করোনার ভয়াবহ পরিস্থিতি বিবেচনা করে সংশ্লিষ্ট সকল পক্ষের পরামর্শে বৈশ্বিক মহামারি হতে মানুষের স্বাস্থ্য নিরাপত্তার কথা বিবেচনায় নিয়েই আন্তর্জাতিকভাবে বহির্বিশ্বের হজ পালনকারীরা হজে অংশ নিতে পারবেন না। জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা সাপেক্ষে ২৮ জুলাই থেকে হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হবে,’ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়।

ফলে সৌদি আরবের বাইরের কেউ এ বছর হজ পালন করতে পারবেন না। বাংলাদেশ থেকে যারা ইতিমধ্যেই সৌদি আরবে গেছেন তারা হজ পালন করতে পারবেন। তবে এই মুহূর্তে কেউ হজ করতে সৌদি আরবে যেতে পারবেন না। 

জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ লাখ ৭১ হাজার ৬৪০ জনে।

এছাড়া, প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৯০ লাখ ৭৪ হাজার ৬২৪ জন।

জেএইচইউর তথ্য অনুসারে, মঙ্গলবার পর্যন্ত ব্রাজিলে ১১ লাখ ৬ হাজার ৪৭০ জন কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগী নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পর দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। দেশটিতে মারা গেছে ৫১ হাজার ২৭১ জন।

এদিকে, তৃতীয় সর্বাধিক সংক্রমিত দেশ রাশিয়ায় মঙ্গলবার পর্যন্ত ৫ লাখ ৯১ হাজার ৪৬৫ করোনায়া আক্রান্ত হয়েছে এবং মারা গেছে ৮ হাজার ১৯৬ জন।

ইতোমধ্যে দক্ষিণ এশিয়ার দেশ ভারত কোভিড-১৯ এ  ৪ লাখ ২৫ হাজার ২৮২ জন আক্রান্ত নিয়ে চতুর্থ স্থানে উঠে এসেছে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১৩ হাজার ৬৯৯ জন মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত ২৩ লাখেরও বেশি মানুষ আক্রান্ত এবং মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ২০ হাজার ৩৯৩ জনের।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী এ পর্যন্ত ২১৩টিরও বেশি দেশে ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

বাংলাদেশ পরিস্থিতি

গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্তের পর ১৮ মার্চ প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। তবে সাম্প্রতিক সময়ে দেশে নতুন করে এ ভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে।

দেশে নতুন করে আরও ৩৪৮০ জনের শরীরে মহামারি করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণ করেছেন আরও ৩৮ জন।

সোমবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) ডা. নাসিমা সুলতানা কোভিড-১৯ সংক্রান্ত নিয়মিত অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় ১৬ হাজার ২৮৭টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। ৬২টি ল্যাবে মোট পরীক্ষা করা হয়েছে ১৫ হাজার ৫৫৫টি। মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ছয় লাখ ২৭ হাজার ৭১৯টি।

দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখ ১৫ হাজার ৭৮৬ জন। শনাক্তের হার ২২. ৩৯ শতাংশ। সেই সাথে মারা গেছেন মোট এক হাজার ৫০২ জন। শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১.৩০ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৩৮ জনের মধ্যে পুরুষ ৩৫ এবং নারী তিনজন। হাসপাতালে মারা গেছেন ২৫ জন, বাড়িতে ১২ এবং মৃত অবস্থায় হাসপাতালে এসেছেন একজন।

এদিকে, করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন আরও এক হাজার ৬৭৮ জন। এ নিয়ে দেশে মোট সুস্থ ব্যক্তির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪৬ হাজার ৭৫৫ জন।

মন্তব্য লিখুন :