শিক্ষাভাবনা

কওমি মাদরাসা: নব্য ফারাও এবং যুগের নবী মুসা

১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৬:২৬
লাবীব আব্দুল্লাহ

কওমি মাদরাসাগুলোকে একুশ শতকের দাবি ও চাহিদার স্পন্দন উপলব্দি করতে হবে৷ কলোনিউজমের যুগে নেই আজকের পৃথিবী৷ পৃথিবী আজ উত্তরাধুনিক যুগে৷ এ শতকের মানুষের মন মানসিকা সাবেকি সব চিন্তা চিন্তাকে ছাড়িয়ে যাচ্ছে৷ বদলে যাচ্ছে দ্রুত পৃথিবী৷ বদলে যাচ্ছে যুক্তি তর্কের ঢং৷ মুসলিম উম্মাহর উপর সর্বগ্রাসি আগ্রাসন৷ এই আগ্রাসন চৈন্তিক ও সামরিক৷ এই আগ্রাসন সাংস্কৃতিক৷ এই লড়াই চিন্তার৷ কওমি মাদরাসায় যারা কর্তপক্ষ দাবি করেন বা কওমী চেতনার প্রকৃত বাহক তাদের যুগের নাড়ি বোঝতে হবে৷ শুধু ইংরেজ হটিয়েছি আমরা এই কথা বলার সময় শেষ৷ ইংরেজ শারিকীরক হটলেও তাদের সেবাদাসদের রাজত্ব সব অঙ্গনেই৷ আমাদের আদালত থেকে ড্রয়িং রুম তক ইংরেজদের কালচার চর্চা হয়৷ আমাদের মানসিকায় সেই বিলেতি ভাব৷

আমাদের মনোজগতে বসবাস বিলেতি সংস্কৃতি৷ যারা ইসলামের প্রতিনিধিত্ব করেন তাদেরকে তাহারা মোল্লা, কাঠমোল্লা, মুন্সি, মৌলবাদী উপাধী দিয়ে রেখেছে সমাজে৷ এই সমাজ উত্তারাধুনিক যুগে জঙ্গি বলতেও লজ্জাবোধ করে না ইসলামের কথা যারা বলতে চায়৷ সোভিয়েত ইউনিউনের ভাঙ্গনের পর একক বিশ্বব্যাবস্থা৷ এক ফেরাউনের পৃথিবী৷ যুগের ফারাও ট্রাম্প৷ সরাসরি ইসলামী মৌলবাদ ধংসের ঘোষণা৷ মৌলবাদ কিন্তু অন্যধর্মেও আছে সেগুলো নিয়ে কথা নেই৷ কথা শুধু ইসলাম নিয়ে৷ ইসলামী বিশ্বের সম্পদ লুট করবে তাদের নিয়ে আবার কড়া কথাও বলবে৷ 

নিজেরা সন্ত্রাস ও সন্ত্রাসী জন্ম দেবে চাপিয়ে দেবে মুসলিম বিশ্বের উপর৷ 

ঈদের দিন সাদ্দামকে কুরবানি দেবে সেটি সন্ত্রাস নয়? 

গাদ্দাফিকে খুন করবে সেটি সন্ত্রাসী কাজ নয়? 

আরবদের স্বদেশ থেকে বিতাড়িত করবে এবং ইহুদী বসতি গড়বে সেটি সন্ত্রাস নয়? 

ইরাকের সভ্যতা ধ্বংস করবে সেটি সন্ত্রাস নয়? 

ইরাকী শিশুকে হত্যা করবে সেটি মানবাধিকার লঙ্গন নয়? 

সিরিয়ার সিভিলিয়ান হত্যা করবে সেটি সন্ত্রাস নয়? 

সিরিয়ায় লাখ লাখ বনি আদমকে উদ্বাস্ত করবে সেটি সন্ত্রাস নয়? সন্ত্রাস প্রতিরোধে মুক্তিসংগ্রাম করলে৷ সন্ত্রাস প্রতিরোধে যুদ্ধ করলে৷ 

এখন তাহাদের নজর ইসলামী শিক্ষা নিয়ে৷ দারুল উলুমের ফিকর ও শিক্ষাচিন্তা নিয়ে নব্য ফারাওদের নানা তেলেসমাতি৷ সেটিকে আধুনিকায়ণ করার নানা তৎপরতা৷ নানা ফাঁদ৷

ইসলাম যতদিন থাকবে ইসলামের সুশিক্ষাও থাকবে৷ ইসলামের সাথে লড়াই করে কেউ সফল হয় নি অতীতে৷ আজও চলছে লড়াই ক্রস ক্রিসেন্টের৷ চলছে তাদের ভাষায় সভ্যতার লড়াই৷ এই লড়াই সীমানাহীন৷ সময় এখানে অনন্ত৷ এই লড়াইয়ের ধরন বোঝতে হবে কওমিয়ানদের৷ কওমী মাদরাসার চাটায় তেপায়া তাহাদের অনেক ভয়৷

সেটি এখন সাম্রজ্যবাদীদের গবেষণার বিষয়৷ চরম মাথা ব্যথা৷ এই মাথা ব্যথার বহুমাত্রিক কারণ আছে৷

আজকের সভ্যতা নামের নানা অসভ্যতার চ্যালেঞ্জ গ্রহন করে এগিয়ে যাচ্ছে ইসলামী শিক্ষার দূর্গ দারুল উলুম দেওবন্দ৷

তথাকথিত জঙ্গিবাদের তকমা লাগাতে চায় দেওবন্দিদেরকে কিন্তু দেওবন্দি চেতনায় ইসলামের সুমহান আদর্শ রয়েছে৷

সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে তাদের অবস্থান স্পষ্ঠ তবে তাদেরকে নানা ফাঁদে ফেলার অপচেষ্টা করা হবে৷ সতর্ক থাকতে হবে কওমিয়ানদের৷ চিন্তার লড়াইয়ে আরও সজাগ থাকতে হবে৷

মিডিয়ায় আরও সরব হতে হবে৷ কথা বলতে হবে৷ নব্য ফারাওদের মোকাবেলায় দারুল উলুম দেওবন্দ হযরত মুসা আলাইহিস সালাম৷ সামনে সাগর৷ পাড়ি দিতেই হবে৷

ডোববে ফারাও ও তাহাদের দল৷ মুক্তির রাজপথে দেওবন্দের মাদরাসগুলো এবং তেপায়া চাটায়ে যাদের সংসার৷ তবে আরও সজাগ থাকতে হবে একুশ শতকে৷

মন্তব্য লিখুন :