করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বলে ধর্ষণ থেকে বাঁচলেন তরুণী

১০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২১:৫২
অনুসন্ধান ডেস্ক

মরণব্যাধি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত দাবি করে ধর্ষণের শিকার হওয়া থেকে রক্ষা পেলেন এক তরুণী। ওই যুবক পুলিশের কাছে নিজের অপরাধ স্বীকার করেছেন।

শুক্রবার রাতে চীনের উহান থেকে তিন–চার ঘণ্টা পথের দূরত্বের শহর জিংসানের পিংবা এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। অভিযুক্ত যুবকের নাম জিয়াও (২৫)।

ডেইলি মেইল ও সিনহুয়ার খবরে বলা হয়, শুক্রবার রাতে ওই তরুণী বাড়িতে একা ছিলেন। এই সুযোগে ওই বাড়িতে ঢুকে পড়েন জিয়াও। লুটপাটের পর ওই তরুণীকে ধর্ষণ করতে চেষ্টা করেন তিনি।

এ সময় ওই তরুণী চিৎকার করে বলতে থাকেন, ‘আমি উহান থেকে ফিরে এসেছি। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আমি। তাই একা এই বাড়িতে আছি। সংক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে অন্যরা চলে গেছে।’

এ কথা বলার সঙ্গে সঙ্গে মেয়েটি যুবককে ধাক্কা দেন। আর সঙ্গে সঙ্গে কাশি দেওয়ার ভান করেন। আর এটা বিশ্বাস করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ভয়ে লুটপাটের জিনিস নিয়ে পালিয়ে যান জিয়াও।

ভুক্তভোগী তরুণী দাবি করেছেন, ওই যুবক নগদ তিন হাজার ৮০ ইউয়ান (৩৩৮ ডলার) নিয়ে পালিয়ে গিয়েছেন।

এদিকে পালালেও রক্ষা পাননি জিয়াও। পরে ওই তরুণীর অভিযোগের ভিত্তিতে জিয়াওকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। নিজের অপরাধ স্বীকার করেছেন তিনি।

পুলিশ জানিয়েছে, স্থানীয় বাসিন্দা জিয়াও এর কোনও অর্থ নেই, তাই তিনি চুরির পরিকল্পনা করেছিল। আর যখন দেখেন ওই তরুণী বাড়িতে একা, তখন তিনি ধর্ষণে উদ্যত হন।

মন্তব্য লিখুন :