ভারতের গ্রামাঞ্চলে করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধি

২২ জুন ২০২০, ১৪:৫৪
অনুসন্ধান ডেস্ক

ভারতের বিভিন্ন গ্রামাঞ্চলে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার সাথে সাথে সোমবার পর্যন্ত দেশটিতে কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ লাখ ২৫ হাজার ২৮২ জনে।

সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, সাম্প্রতিক সময়ে বড় বড় শহরগুলো থেকে গ্রামে ফিরে যাওয়া অভিবাসী কর্মীদের মাধ্যমেই ভাইরাসের সংক্রমণ প্রত্যন্ত অঞ্চলেও ছড়িয়ে পড়েছে।

সোমবার নতুন করে আরও ১৪ হাজার ৮২১ জন শনাক্ত এবং ৩০০ মানুষের মৃত্যুর খবর জানিয়েছে  ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। এর মধ্য দিয়ে দক্ষিণ এশিয়ার এ দেশটিতে মৃতের সংখ্যা ১৩ হাজার ছাড়িয়েছে। এছাড়া উপকূলীয় রাজ্য গোয়ায় প্রথম একজন কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল এবং রাশিয়ার পর আক্রান্তের দিক থেকে করোনাভাইরাসে ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় চতুর্থ অবস্থানে রয়ছে ভারত।

ভারত সরকারের পরিকল্পনা সংস্থা নিতি আয়োগ জানিয়েছে, দেশের সবচেয়ে দরিদ্র ১১২টি জেলার মধ্যে ৯৮টিতে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েছে।

এদিকে সোমবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৮৯ লাখ ছাড়িয়েছে।

প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৪ লাখ ৬৭ হাজার ৬৩৬ জনের এবং সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪৪ লাখেরও বেশি মানুষ।

জেএইচইউর তথ্য অনুসারে, সোমবার পর্যন্ত ব্রাজিল ও রাশিয়া যথাক্রমে ১০ লাখ ৮৩ হাজার ৩৪১ এবং ৫ লাখ ৮৩ হাজার ৮৭৯ জন কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগী নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পর দ্বিতীয় এবং তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে।

রাশিয়ার পর সবচেয়ে বেশি করোনা আক্রান্ত রোগীর তালিকায় চতুর্থ স্থানে রয়েছে দক্ষিণ এশিয়ার দেশ ভারত। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছে প্রায় ৪ লাখেরও বেশি মানুষ এবং মৃত্যু হয়েছে ১৩ হাজার ২৫৪ জনের।

করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্থ যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত ২২ লাখেরও বেশি মানুষ আক্রান্ত এবং মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ১৯ হাজার ৯৬৯ জনের।

যুক্তরাষ্ট্রের পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে ব্রাজিলে। দেশটিতে এ পর্যন্ত করোনায় ৫০ হাজারেরও বেশি মানুষ মারা গেছে।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী এ পর্যন্ত ২১৩টিরও বেশি দেশে ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

মন্তব্য লিখুন :