আত্রাইয়ে নারী ভাইস চেয়ারম্যানের পরিকল্পনায় শ্রমিকলীগ নেতার রগ কর্তন!

১৭ মে ২০২১, ১৪:০০
মো. রুহুল আমীন, বিশেষ প্রতিনিধি ও সোহেল আরমান, আত্রাই প্রতিনিধি

আত্রাইয়ে নারী ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগমের পরিকল্পনায় শ্রমিকলীগ নেতার হাত-পায়ের রগ কেটে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ১২ জনের নাম উল্লেখসহ  অজ্ঞাত আরও ৪-৫ জনকে আসামি করে আহতের স্ত্রী সাবরিনা সুলতানা ঝর্ণা বাদী হয়ে আত্রাই থানায় মামলা দায়ের করেছেন। 

এদিকে মামলার পর পরিকল্পনাকারী হিসাবে উপজেলা পরিষদের নারী ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগমকে আটক করে সোমবার সকালে নওগাঁ জেল হাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ। 

আটকের আগে মমতাজ বেগম জানান, রাজশাহীর বাগমাড়া উপজেলায় ঠিকাদারীর ৬৫ লাখ এবং ধার নেওয়া ২ লাখ টকাসহ মোট ৬৭ লাখ টাকা শ্রমিকলীগ নেতা সোয়েবের কাছে পাবেন তারা। আমি ও আমার ছেলে রাব্বী বহুবার অনুরোধ এবং দেন-দরবার করেও টাকা পাইনি। 

পুলিশ জানায়, ঘটনার দিন সকাল আনুমানিক ১১টায় উপজেলা নিউ মার্কেটে ঠিকাদারি অফিস কক্ষে আসেন সোয়েব। হঠাৎ মির্জা রাব্বী দলবল নিয়ে সরদার সোয়েবের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় ফেলে রেখে চলে যায়। বাজারের লোকজন টের পেয়ে তাকে উদ্ধার করে আত্রাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজে স্থানান্তর করা হয়। 

সোয়েবের পরিবার জানায়, সোয়েব বর্তমানে ঢাকায় চিকিৎসাধীন এবং মোটামুটি সুস্থ আছে।

আত্রাই থানা ওসি আবুল কালাম আজাদ বলেন, আহতের স্ত্রী সাবরিনা সুলতানা ঝর্ণা বাদী হয়ে ১২ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাতনামা ৪/৫ জন কে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। মামলার আসামি হিসাবে মমতাজ বেগমকে আটক করে সোমবার সকালে নওগাঁ জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন :