কলকাতার ঐতিহ্যবাহী ইস্ট বেঙ্গল ক্লাবের আজীবন সদস্য হলেন বসুন্ধরা এমডি

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ১৪:০০
অনুসন্ধান ডেস্ক

দুই বাংলা—পূর্ব ও পশ্চিম। ভাষা, সংস্কৃতিতে মিলও কম নয়। আবার ফুটবলও দুই বাংলার প্রাণের খেলা। সেই ফুটবলকে কেন্দ্র করে দুই বাংলাকে এক সুতোয় গেঁথেছে এপারের শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র এবং ওপারের ইস্ট বেঙ্গল। এই মেলবন্ধন রচনার অনুষ্ঠানে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের চেয়ারম্যান এবং বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীরকে আজীবন সদস্য পদ দিয়েছে কলকাতার ঐতিহ্যবাহী ক্লাবটি।

কলকাতার ইস্ট বেঙ্গল ক্লাব গত ২৫ ফেব্রুয়ারি বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালকসায়েম সোবহান আনভীরকে সংবর্ধনা দেয়। এ সময় তাঁকে ক্লাবের আজীবন সদস্য পদও দেওয়া হয়। 

ইস্ট বেঙ্গল ক্লাবের সম্মাননীয় আজীবন সদস্য পদ প্রাপ্তির অনুষ্ঠানে সায়েম সোবহান আনভীর বলেন, ‘আপনারা আন্তরিকতা ও ভালোবাসা দিয়ে আমাকে ঋণী করেছেন। আমিও আপনাদের আমন্ত্রণ জানাচ্ছি।’ তিনি বলেন, ‘এখানে অনেকবার শুনেছি, এপার বাংলা-ওপার বাংলা। আসলে বাংলা তো একটাই, ভাষা এক, মানুষগুলোও এক। শুধু মাঝখানে একটা লাইন এসে গেছে। তাই বলে খেলা বন্ধ থাকবে? আসুন, বাংলাকে খেলাধুলার মাধ্যমে এক করি। আমি চাই শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের সঙ্গে ইস্ট বেঙ্গল ক্লাবের খেলা হোক। আমি আশা করব, ক্লাবের কর্মকর্তারা আমার প্রস্তাব গ্রহণ করবেন। খেলা পুরো স্পন্সর বসুন্ধরা করবে।’

সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের সহসভাপতি সুব্রত দত্ত এবং বসুন্ধরা কিংসের সভাপতি ও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সহসভাপতি ইমরুল হাসানও তাঁদের বক্তব্যে দুই বাংলার ফুটবল জনপ্রিয়তার কথা তুলে ধরেন।

দেবব্রত সরকার বলেন, ‘একসময় দুই বাংলা এক ছিল। শিল্প, সাহিত্য, খেলাধুলা এবং জীবনাদর্শে সারা পৃথিবীর সামনে উজ্জ্বল হয়ে ছিল। কোনো এক অজানা দেয়ালের কারণে আমাদের মধ্যে কিছুটা দূরত্ব তৈরি হয়েছে। কিন্তু আমাদের হৃদয়ে বাংলাদেশ সেই একই রকম রয়েছে। আজ সেই হৃদয়ের টানেই দুই বাংলার আবার একসঙ্গে চলা প্রয়োজন। বসুন্ধরা ও ইস্ট বেঙ্গল ক্লাব মিলিতভাবে দুই বাংলার খেলাধুলা সমন্বয়ের কাজ করতে পারে।’

মন্তব্য লিখুন :