সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের পাশে লাফজ

২১ এপ্রিল ২০২২, ১৪:৩৫
নিজস্ব প্রতিবেদক

আসন্ন ঈদুল ফিতরে হরেক রকম পরিকল্পনা আছে অনেকের। এর মাঝে নানা খাদ্যদ্রব্য গ্রহণের চিন্তা আছে। আছে নতুন জামাকাপড় কেনার পরিকল্পনা। আর তা কেনার জন্য মার্কেটে ছুটছেন অনেকে। বেশি স্বাবলম্বীরা গয়নাও কিনতে পারেন ঈদ উপলক্ষে। অনেকে আবার ছুটি উদযাপনের জন্য দেশের বাইরে যাওয়ার পরিকল্পনা করছেন।কিন্তু চারপাশের সুবিধাবঞ্চিত এবং গৃহহীন মানুষদের কথা ভেবে দেখেছেন একবার?

আশ্রয় ফাউন্ডেশন, একটি অলাভজনক সংস্থা, যার লক্ষ্য বাংলাদেশে নিরক্ষরতা দূর করা এবং দারিদ্র্যের হার কমানো। এই মর্যাদাপূর্ণ প্রতিষ্ঠানটি ঢাকার রায়েরবাজারে অবস্থিত; যেখানে বিপুলসংখ্যক পথশিশুদের বিনামূল্যে শিক্ষা দেওয়া হয়। শিক্ষার পাশাপাশি সংস্থাটি পথশিশুদের আশ্রয়, স্বাস্থ্য সুবিধা, চিকিৎসা সেবা, স্যানিটাইজেশন এবং আরো অনেক মৌলিক সুবিধা দিয়ে থাকে। 

এই রমজানে, সিঙ্গাপুরের লাইফস্টাইল ব্র্যান্ড লাফজ বঞ্চিত শিশুদের সাহায্য করার জন্য আশ্রয় ফাউন্ডেশনের সাথে একত্রিত হয়েছে। ‘গিফট এ স্মাইল’ নিয়ে এসেছে লাফজ, যেখানে একজন গ্রাহককে একটি উপহারের বাক্স কিনতে হবে এবং সেখান থেকে আয়ের ২৫ শতাংশ পরোক্ষভাবে এই স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠানের দরিদ্র শিশুদের শিক্ষার উদ্দেশ্যে প্রদান করা হবে। এই উপহার বাক্স বিভিন্ন মূল্যের রয়েছে। গ্রাহক তাদের বাজেটের উপযুক্ততা অনুযায়ী একটি উপহার বাক্স বেছে নিতে পারেন। 

লাফজ থেকে জানা যায়, এই গিফট বক্সে থাকবে তাদের হালাল কসমেটিকস পণ্য। লাফজ ও আশ্রয় ফাউন্ডেশন সংশ্লিষ্টরা জানান, রমজান হলো বেশি করে মানবিক কাজ করার এবং দাতব্য কাজে নিয়োজিত হওয়ার একটি শুভ সময়। রমজান মুসলমানের আত্মাকে পরিশুদ্ধ করার এবং ভালো কাজগুলিকে বৃদ্ধি করার সময়। পবিত্র মাসটি খারাপ অভ্যাস ত্যাগ করতে, হৃদয়ে কৃতজ্ঞতা বিকাশ করতে এবং চারপাশে উষ্ণতা ও ভালোবাসা ছড়িয়ে দেওয়ার বার্তা বয়ে নিয়ে আসে। 

তারা আরো জানান, লাফজ এবং আশ্রয় ফাউন্ডেশন শান্তি প্রতিষ্ঠা এবং একটি শিক্ষিত জাতি গঠনের ধারণা ভাগ করে নেওয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। একই পথে হাঁটা এবং একই গন্তব্যের দিকে এগিয়ে যাওয়া গৃহহীন শিশুদের আলোকিত করার উদ্দেশ্যকে আরো কার্যকর করেছে। 

লাফজ সততার বার্তা ছড়িয়ে দেওয়ার উদ্দেশ্য নিয়ে বিশ্বের অনেক দেশে কাজ করছে বলেও জানান সংশ্লিষ্টরা। 

অনুসন্ধান/আরইউ

মন্তব্য লিখুন :